গোল্ডেন এজ অব সায়েন্স ফিকশনের কয়েকজন ইলাস্ট্রেটর

দেবজ্যোতি গুহ

অলংকরণ:ইন্টারনেট

সায়েন্স ফিকশন বললেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে অসম্ভব সব জগতের ছবি, অদ্ভুত যত ভিনগ্রহী, গ্র্যান্ড স্পেস এক্সপ্লোরেসন, দুর্দান্ত সব মহাকাশযান, নানা রঙের ভবিষ্যতের পৃথিবী, অথবা বৃহৎ রোবট। এগুলির মূল উৎস মনের আয়নায় প্রতিফলিত হওয়া নানাবিধ সায়েন্স ফিকশন বই, পত্র-পত্রিকার প্রচ্ছদে ছাপা ছবি। এই ছবিগুলির অধিকাংশই ছাপা হয়েছে গত শতাব্দীর নানান দশকে – স্থান মূলত সিনেমার পোস্টার, বই-এর প্রচ্ছদ অথবা পত্রিকার ইলাস্ট্রেশন। বিভিন্ন দশকে ছাপা হলেও এদের অধিকাংশই কিন্তু প্রভাবিত গোল্ডেন এজ অব সায়েন্স ফিকশনের বিভিন্ন ইলাস্ট্রেশন থেকে অথবা কখনও বা সরাসরি সশ্রদ্ধ স্বীকৃতি সেই সব ইলাস্ট্রেশন অথবা ইলাস্ট্রেটরদের প্রতি। অন্যভাবে বললে এই পিরিয়ড সায়েন্স ফিকশন ইলাস্ট্রেশনেরও স্বর্ণযুগ। এই লেখা সেইসব কিছু ইলাস্ট্রেটরদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার সামান্য প্রয়াস।  পাঠক, আগেই ক্ষমা চেয়ে রাখি যে এই ক্ষুদ্র লেখার পরিসরে অনেক ইলাস্ট্রেটরদের কথাই বলা বাকি থেকে যাবে; ইচ্ছা রইল পরে কখনও আরও বড় করে এঁদের নিয়ে লেখার।

     তবে সবার আগে একবার দেখে নিই যে গোল্ডেন এজ অব সায়েন্স ফিকশন বলতে কী বলা হয়— প্রচলিত ধারণায় ১৯৩৮ থেকে ১৯৫০ এর দশকের গোড়ার বছরগুলি অবধি গোল্ডেন এজ অফ সায়েন্স ফিকশন বলা হয়। Astounding Science Fiction পত্রিকার জুলাই ১৯৩৯ এর সংখ্যাটিকে অনেকেই গোল্ডেন এজ অব সায়েন্স ফিকশনের সূচনা ধরেন।

     সম্পাদক John W. Campbell এর পরিচালনায় Astounding Science Fiction পত্রিকার জুলাই ১৯৩৯ সংখ্যায় ছাপা হয় Isaac Asimov এর “Trends” আর A. E. van Vogt এর “Black Destroyer”; যথাক্রমে সঙ্গে ছবিগুলি এঁকেছিলেন Paul Orban এবং Frank Kramer।

     সেই সংখ্যার প্রচ্ছদটি এঁকেছিলেন Graves Gladney।

Graves Gladney

     ১৯০৭ সালে জন্মগ্রহণ করেন আমেরিকার সেন্ট লুই, মিসুউরিতে। ১৯৩৪ সালে শুরু করেন পেশাগতভাবে ছবি আঁকা শুরু করেন নিউ ইয়র্কে। মূলত প্রচ্ছদশিল্পী হিসাবেই খ্যাতি লাভ করেন, Street & Smith প্রকাশনার নানা পত্রিকা এবং বইয়ের প্রচ্ছদ এঁকে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধেও লড়েছেন এবং নরমান্ডি ল্যান্ডিং ও ১৯৪৫-এ বার্লিন অধিগ্রহণেও যুক্ত ছিলেন সৈনিক হিসাবে। ১৯৭৬ সালে মারা যান সেন্ট লুই, মিসুউরিতে।

Edd Cartier

     ১৯১৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন আমেরিকার নিউ জারসিতে। ১৯৩৭ সালে প্রথম পেশাদারী কাজ শুরু করেন। মূলত Street & Smith প্রকাশনীর বই এবং পত্রিকায় ইলাস্ট্রেশনের কাজ ছাড়াও প্রচ্ছদশিল্পী হিসাবে কাজ করেছেন। ১৯৪৩ সালে সৈনিক হয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধেও লড়েছেন। Isaac Asimov, L. Ron Hubbard, John W. Campbell, Robert A. Hienlein প্রমুখ উল্লেখযোগ্য লেখকদের গল্প এবং বইয়ে ইলাস্ট্রেশন ও প্রচ্ছদ এঁকেছেন। ২০০৮ সালে পরলোক গমন করেন।

Hans Waldemar Wessolowski

     Hans Waldemar Wessolowski ওরফে H.W. Wesso ১৮৯৪ সালে জার্মানিতে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯১২ সালে আমেরিকাতে পালিয়ে আসেন জাহাজে কর্মরত অবস্থায়। অনেক সংগ্রাম করে ১৯১৮ সালের মধ্যে নিজেকে শিল্পী হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেন এবং পেশাগত জীবন শুরু করেন নিউ ইয়র্ক শহরে। বিভিন্ন প্রকাশনার জন্যে কাজ করেছেন ইলাস্ট্রেটর ও প্রচ্ছদশিল্পী হিসাবে। পরবর্তী জীবনে স্টাফ আর্টিস্ট হিসাবে কাজ করেছেন The New York Daily News কাগজে। ১৯৪৮ সালে পরলোক গমন করেন।

Virgil Finlay

     Virgil Finlay ১৯১৪ সালে নিউ ইয়র্কে। সায়েন্স ফিকশন আর্টিস্টদের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ইলাস্ট্রেটর ও প্রচ্ছদশিল্পী হিসাবে নাম করেন তাঁর কল্পনাপ্রবণ ছবির জন্যে। যদিও সারা জীবন তিনি নানা মিডিয়ামে এঁকেছেন যেমন জলরং, তেলরং, অনচ্ছ জলরঙের মিশ্রণ, পেন্সিল, কিন্তু লোকে তাকে মূলত মনে রেখেছে তার কালি ও কলমের আকার জন্যে। পেশাগত জীবন শুরু করেন ১৯৩৫এ। ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইলাস্ট্রেটর হিসাবে কাজ করেছেন অনেক পত্রিকা এবং প্রকাশনার সঙ্গে। ৩৫ বছরের কাজের জীবনে প্রায় ২৬০০ আর্ট ওয়ার্ক রেখে গেছেন। ১৯৭১ সালে পরলোক গমন করেন। Science Fiction Hall of Fame এ অভিষিক্ত হন ২০১২ সালে।

Earle K. Bergey

     ১৯০১ সালে জন্মগ্রহণ করেন ফিলাডেলফিয়ায়। ১৯১৮ সালে অল্প বয়েসে পেশাগত জীবন শুরু করেন স্টাফ আর্টিস্ট হিসাবে The Philadelphia Ledger কাগজে। ১৯৪৮ সাল থেকে Thrilling Publications প্রকাশনীর বিভিন্ন সায়েন্স ফিকশন বইয়ের প্রচ্ছদ আঁকেন। ১৯৫২ সালে অল্প বয়েসে মারা যান।

Hannes Bok

     Hannes Bok ছদ্মনামটির আড়ালের শিল্পীর আসল নাম Wayne Francis Woodard, জন্ম ১৯১৪ সালে ক্যানসাস সিটিতে। ১৯৩২ সালে ছুতোরের কাজ করার সঙ্গে কিছু পত্রিকায় ছবি আঁকার কাজ শুরু করেন ছদ্মনামে। ১৯৩৯ সালে নিউ ইয়র্ক শহরে চলে আসেন এবং Weird Tales পত্রিকায় কাজ শুরু করেন। তাঁর কাজ নিয়মিত ছাপা হতে থাকে Amazing Stories, Cosmic Science Fiction, Famous Fantastic Mysteries, Fantasy and Science Fiction, Imagination, Marvel Science Fiction, Other Worlds, Startling Stories, Stirring Science Stories, Uncanny Tales, Unknown, ইত্যাদি পত্রিকা ছাড়াও নানা সায়েন্স ফিকশন বইয়ে। এ ছাড়াও ছোট গল্প লিখিয়ে হিসেবেও নাম করেন। ১৯৬৪ সালে অকালে মৃত্যু হয়।

Paul Orban

     ১৮৯৬ সালে জন্মগ্রহণ করেন হাঙ্গেরীর বুদাপেস্ট শহরে। ১৯০২ সালে চলে আসেন আমেরিকাতে শিকাগো শহরে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধর পর থেকে ফ্রিলান্স আর্টিস্ট হিসাবে নানা পত্রিকায় কাজ শুরু করেন ১৯৩০ সাল থেকে। তাঁর উল্লেখযোগ্য কাজ গুলি Astounding Science Fiction পত্রিকায় ছাপা হতে থাকে। ১৯৭৪ সালে তাঁর মৃত্যু হয়।

Chesley Bonestell

     ১৮৮৮ সালে সান ফ্রানসিসকো শহরে জন্মগ্রহণ করেন। প্রথম জীবনে স্থাপত্যবিদ্যা নিয়ে পড়া শুরু করেন, এরপর পড়া ছেড়ে দিয়ে আর্কিটেকচার ফার্মে কাজ শুরু করেন। এরপর লন্ডন পাড়ি দেন Illustrated London News কাগজে কাজ করার সুবাদে, ১৯২৬ সালে ফেরত আসেন আমেরিকাতে। Chrysler Building, U.S. Supreme Court Building, New York Central Building সহ বিখ্যাত সব স্থাপত্য ডিজাইন করেন। ৩০-এর দশকে হলিউড পাড়ি দেন এবং স্পেশাল এফেক্টস ডিজাইনার হয়ে কাজ করেন। ৪০-এর দশকের মধ্যভাগে উনি সায়েন্স ফিকশন পত্রিকার জগতে পা রাখেন এবং প্রভূত নাম করেন মহাকাশের বিশ্বাসযোগ্য ছবির উপাস্থাপনায়। তাঁর আঁকার মধ্যে দিয়েই প্রথম প্রকাশ পায় যে মহাকাশযাত্রা কোন দূরবর্তী বস্ত নয় এবং ছবির রকেটগুলি আঁকা হয় সমসাময়িক রকেটের অনুসারেই। এ ছাড়াও আরও নানা উল্লেখযোগ্য মহাকাশের ছবি আঁকেন অনান্য বিখ্যাত বইয়ের জন্যে— যেমন Willy Ley-এর The Conquest of Space। ১৯৮৬ সালে তাঁর মৃত্যু হয়। ওঁকে “ফাদার অফ মডার্ন স্পেস আর্ট” বলা হয়।

     এ ছাড়াও সে সময়কার কয়েকটি সায়েন্স ফিকশন কমিকস স্ট্রিপ এবং তাদের ইলাস্ট্রেটরদের উল্লেখও করা প্রয়োজন।

Rick Yager – Buck Rogers in the 25th Century

     Buck Rogers in the 25th Century পঞ্চবিংশ শতাব্দিতে এক নভোচরের অ্যাডভেঞ্চার। ১৯২৯ সালে কমিকস স্ট্রিপ হিসাবে প্রকাশিত হতে শুরু করে, প্রথমে ইলাস্ট্রেটর Dick Calkins এর হাতে ডেলি স্ট্রিপে আর Russell Keaton এর সানডে স্ট্রিপে। Rick Yager ১৯৩২ সালে Dick Calkins এর সহকারী হয়ে যোগদান করেন এবং ১৯৫১ সাল থেকে নিজের গল্প এবং ছবি দুই একা হাতে সামলাতে থাকেন। তাঁর হাতে Buck Rogers আরও জনপ্রিয়তা পায় এবং তাঁর আঁকা রকেটগুলি আরও বেশি জনপ্রিয় হয়।

Alex Raymond – Flash Gordon

     Buck Rogers কমিকস স্ট্রিপের প্রতিদ্বন্দিতা করার জন্যে Alex Raymond ১৯৩৩ সালে Alex Raymond, Flash Gordon চালু করেন। অচিরেই এটি Buck Rogers এর থেকে বেশি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

     Planet Comicsএই পরিপ্রেক্ষিতে আমেরিকার Fiction House প্রকাশনীর Planet Comics এর কথা খুবই উল্লেখযোগ্য। জানুয়ারি ১৯৪০ থেকে ১৯৫৩র শীতকাল অবধি প্রকাশ পাওয়া এই কমিক্সে স্পেস ওপেরা, আন্তঃনক্ষত্র ভ্রমণ, সাহসী নভোচর-নভোচরনীদের অ্যাডভেঞ্চার আর তেজী এবং দৃঢ় মহিলা চরিত্রদের জন্যে বিখ্যাত হয়ে থাকবে।

     অনেক উল্লেখযোগ্য কমিকস শিল্পী যেমন Matt Baker, Nick Cardy, Joe Doolin, Graham Ingels, George Evans, Ruben Moreira, John Cullen Murphy, George Tuska তাঁদের কেরিয়ার শুরু করেন এখানে, কমিকস লেজেন্ড Will Eisner প্রথমদিকের বেশ ক’টি সংখ্যার প্রচ্ছদ আঁকেন। এ ছাড়াও Planet Comics এ সেই সময়ে কাজ করেছেন বেশ কজন মহিলা ইলাস্ট্রেটার – Lily Renée, Marcia Snyder, Ruth Atkinson, Fran Hopper; যা সে সময়ে খুব কমই দেখা যেত।

     যেহেতু এই সময়ের আমেরিকান সায়েন্স ফিকশনকেই গোল্ডেন এজ অব সায়েন্স ফিকশনের আওতায় ফেলা হয়, তাই এই লেখা সীমাবদ্ধ রাখা হল মূলত আমেরিকান ইলাস্ট্রেটরদের মধ্যেই। বাদ থেকে গেল আরও অনেকেই, যাদেরকে নিয়েও আরেকটি লেখা হয়ে যেতে পারে।

তথ্য ও ছবি সূত্র: ইন্টারনেট

Leave a Reply




Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!