জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ২১ (অন্তিম পর্ব)

একবিংশ অধ্যায়

 সবুজ বাক্সের উপহার

স্কুলে প্রথম বছরের শেষ সপ্তাহটা জেমসের চোখের সামনে দিয়ে গড়গড়িয়ে চলে গেল যেন। কোন চাপ নেই, নেই কোন ভয়ানক রকমের অ্যাডভেঞ্চার বা মরণপণ প্রচেষ্টার চিন্তা।  তুলনামূলকভাবে অনেক কম চিন্তাভাবনার দরকার এমন কিছু নিবন্ধ লিখতে হলো। আর তার সঙ্গে চললো জাদুদন্ড ব্যবহারের শিক্ষা। হল অফ দ্যা এল্ডারস ক্রসিং এর উত্থানের [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ২০

বিংশ অধ্যায়

 বিশ্বাসঘাতকের গল্প

মি কিন্তু দেখেছিলাম!’ ল্যান্ডরোভার দুটোর মধ্যে দিয়ে ভিন্সের পেছনে যেতে যেতে প্রেস্কট খসখসে গলায় প্রমাণ করার ভঙ্গীতে বললেন। ‘দৈত্যদের দেখেছি! একটা তো ওই গাছগুলোর মতো লম্বা! ওদের পায়ের ছাপের মাপ … ছাপের মাপ …!” দুদিকে হাত প্রসারিত করলেন। পাত্তা না দিয়ে ভিন্স ক্যামেরাটা ঢুকিয়ে রাখলো ফোম দিয়ে ঘেরা স্যুটকেসের ভেতর।

টাই [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১৯

ঊনবিংশ অধ্যায়

রহস্যের উন্মোচন

রের দিন অনেকটা বেলা হয়ে যাওয়ার পর হ্যারি ব্রেকফাস্ট করার জন্য গ্রেট হলের নিচে হাউস এলফদের রান্নাঘরে এলেন। সঙ্গে জেমস, জ্যান আর র‍্যালফ। জেমস দেখতে পেল বিরাট আকারের স্টোভটাকে নিয়ন্ত্রণ করছে সেই গোমড়ামুখো এলফটা যে আগেরবার বলেছিল জেমসদের দিকে  ওদের নজরে থাকবে। এলফটা ওদের দিকে তাকাল কিন্তু কিছু বলল না।  একটা [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১৮

অষ্টাদশ অধ্যায়

 দ্য টাওয়ার অ্যাসেম্বলী

দিগন্তরেখায় ভোরের গোলাপি আলো দেখা দিতেই জেমসের চোখ খুলে গেল। ও পড়ে আছে লুক্কায়িত দ্বীপের ঘাসের ওপর অস্বস্তিকর ভাবে। মনে হচ্ছে ওর হাড় পর্যন্ত ঠান্ডা হয়ে গেছে। একটা কাতরানোর শব্দ বেড়িয়ে এলো নিজের অজান্তেই, উঠে বসার সময়। চারদিকে তাকাতেই প্রথমেই চোখে পড়লো মারলিনের সিংহাসনটা নেই। যেখানে ওটা রাখা ছিল, [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১৭

সপ্তদশ অধ্যায়

প্রত্যাবর্তনের রাত

প্রফেসর জ্যাকসনের অভিযোগ মাদাম কিউরিওর চিকিৎসা ক্ষেত্রে কোন প্রভাব ফেললো না অবশ্য। অনেকটা সময় নিয়ে হাতটা পরীক্ষা করলেন উনি। কখনো টিপলেন, কখনো চিমটি কাটলেন । তারপর ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দেখে   যত্ন করে ব্যান্ডেজ করে দিলেন। আর সেটা করার সময় ওঁর মুখ বন্ধ হলনা ক্ষণিকের জন্যেও।  বক বক করে গেলেন কুইডিচ খেলার সময়ের [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১৬

ষোড়শ অধ্যায়

মারলিনের জাদু লাঠির বিপর্যয়

রের দিন সকালে জেমস, র‍্যালফ আর জ্যান গ্রেট হলে ব্রেকফাস্ট করতে এসে সোজা গ্রিফিন্ডোর টেবিলের শেষ প্রান্তের দিকে এগিয়ে গেল।

হলের ভেতর দিকে হেঁটে যেতে যেতে র‍্যালফ বলল, ‘তুই নিশ্চিত তো এ ব্যাপারে? আশা করি বুঝতে পারছিস এখান ফেরার কোনও পথ আর আমাদের সামনে খোলা থাকবে না।’

জেমস ঠোঁটে ঠোঁট চেপে ধরল, কিন্তু কোনও কথা বলল [আরো পড়ুন]

Read more

বাংলার প্রথম কল্পবিজ্ঞান সম্মেলন – একটি রিপোর্ট

প্রথম দিন

বিগত ২০১৮ সালের ২২শে নভেম্বর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ এবং কল্পবিশ্ব ওয়েবজিনের যৌথ প্রচেষ্টায় ইউ. জি. আর্টসের অনিতা ব্যানার্জি মেমোরিয়াল হলে উদ্বোধন হয়েছিল Workshops of Horrible Creation: 200 Years of Imagined Humans – International Conference and Workshop on Science Fiction নামক তিনদিন ব্যাপী এক বিশাল কর্মযজ্ঞের।  অংশগ্রহণকারী  সমস্ত কল্পবিজ্ঞানপ্রেমী মানুষকে চমকে দেওয়ার জন্য অপেক্ষা [আরো পড়ুন]

Read more

পাঙ্ক কল্পবিজ্ঞান: সাহিত্যের বিপ্লব না অপচয় ?

The future is already here – it’s just not very evenly distributed 

                                                                                                                  — William Gibson

‘পাঙ্ক’— এই শব্দটার সঙ্গে আমার প্রথম পরিচয় ১৯৭১-এ নির্মিত ক্লিণ্ট ইস্টউডের বিখ্যাত ক্রাইম সিনেমা ডার্টি হ্যারির মাধ্যমে। ফিল্মের ক্লাইম্যাক্সে উদ্যত বন্দুক হাতে হ্যারি কালাহানের মুখে ছিল সেই বিখ্যাত সংলাপ— “Did he fire six shots or only five?” Well to tell you the truth in all this excitement I kinda [আরো পড়ুন]

Read more

সম্পাদকীয়

ল্পবিশ্বের বন্ধুরা, সবে মাঘের শুরু অথচ শীত প্রায় পালাই পালাই করছে কলকাতা থেকে। সেদিন এক বন্ধু মজা করে বলছিলেন এ সবই কল্পবিশ্বের ক্লাই-ফাই এফেক্ট। তবে ব্যাপারটা কিন্তু সত্যিই আর মজার পর্যায়ে থাকছে না, পৃথিবীর সব দেশ চিন্তিত আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনা নিয়ে। বাঙালীর এক অন্যতম উৎসব বইমেলা এসে গেল প্রায়, কিন্তু কল্পবিশ্বের দপ্তরে কারো মন ভালো [আরো পড়ুন]

Read more

মায়াবতী

চরিত্র

(ষ্টেজে আবির্ভাবের ক্রমানুযায়ী)

নেপথ্য                           পুরুষ অথবা নারী কন্ঠ

বিবেক মিত্র                   মধ্যবয়সী পুরুষ। পেশায় উকিল

বিকাশ                          মধ্যবয়সী পুরুষ। বিবেকের সহকারী ও ভৃত্য কানে কম শোনেন

মায়াবতী                       যুবতী নারী। ভাল গান গাইতে পারেন

বিবেকের বিবেক           মধ্যবয়সী পুরুষ। বিবেক মিত্রর ছায়ার মতন

পরেশ ঘটক            [আরো পড়ুন]

Read more

প্রতিবিম্ব

তুন বাড়িটা বেশ ভালো লেগে গেল অভয়ের। অভয় একজন পদার্থবিজ্ঞানের ছাত্র, ও এই শহরে এসেছে ওর পি.এইচ.ডি কমপ্লিট করতে। ইউনিভার্সিটির হোস্টেলে জায়গা না পাওয়ায় ও শেষ পর্যন্ত এই বাড়িটা ভাড়া নিতে বাধ্য হল। বাড়িওয়ালা ভদ্রলোক সুধীনবাবু বেশ অমায়িক। নিজে রিটায়ার্ড মানুষ, বাড়িতে বউ আর ছেলে;ছেলে চাকরি করে। ভদ্রলোক বেশ রসিক লোক, গল্প গুজব করতে খুব ভালোবাসেন। [আরো পড়ুন]

Read more

নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ

[১]

প্রায় আট নয় বছর পরে নির্ঝরকে দেখে সেদিন আমার চিনতে এতটুকু অসুবিধা হয়নি। নির্ঝরকে আমি লাস্ট দেখেছি সেই জেলাস্কুল থেকে ও যখন পাশ করে বেরোল, তারপর ও কলকাতা চলে গেল এগারো বারো ক্লাস পড়তে আর সেই থেকে সব যোগাযোগ সব বিছিন্ন। তখন মোবাইল বা আজকের এই সোশ্যাল মিডিয়ার এই আধিপত্যও ছিল না, সুতরাং বন্ধুত্ব বা সম্পর্ক গুলোকে নদীতে বিসর্জন দেওয়া ছাড়া [আরো পড়ুন]

Read more

বিশ্বপ্রাণ

আজ এখন

ধীরে জ্ঞান ফিরে আসছিল লুসিফারের। মাথার পিছন দিকে প্রচণ্ড ব্যথা। তার চোখ বাঁধা, হাত-পাগুলো নাড়ানোর প্রশ্নই নেই, কারণ শক্ত নাইলনের দড়ি দিয়ে হাত-পাও বাঁধা। সে বুঝতে পারল গাড়ির ট্রাঙ্কে ভরে কোথাও নিয়ে চলেছে লোকটা বা লোকগুলো। লোকটা একা ছিল না, কোথা থেকে মাটি ফুঁড়ে চলে এসেছিল ওর শাকরেদরা! লুসিফার সাবধান হওয়ারও সময় পায় নি!

লোকগুলো খুব একটা পাকাপোক্ত [আরো পড়ুন]

Read more

অপার্থিব মেধার সন্ধানে

পর্ব – ৫

আন্তঃনক্ষত্র পরিযান

বে সূর্যাস্ত হয়েছে। পশ্চিম আকাশে প্রহর শেষের আলোয় রাঙা মেঘ। বারান্দায় বসে চা খাচ্ছি। কলিং বেলের শব্দ শুনে উঠে গিয়ে দরজা খুলে দেখি প্রফেসর মহাকাশ ভট্টের সহকারী ধরণী – আমি অবশ্য ধরণীদা বলি। উনি বললেন –“স্যার আপনাকে সম্ভব হলে আজ রাত আটটা নাগাদ যেতে বলেছেন। উনি বেড়িয়েছেন – সাতটার মধ্যে ফিরে আসবেন। ক’দিন খুব [আরো পড়ুন]

Read more

নরকোচিত

রোদের তীব্রতায় চোখ মেলে তাকানো যায় না। হাত দিয়ে চোখ আড়াল করে রাখতে হয়। আকাশ ভয়াবহ নীল। বউ বাচ্চা বাসায় রেখে পিঠে ছোট্ট কালো ব্যাগটাকে সঙ্গী করে এতো দূরে যেতে মন চাইছে না। কিন্তু জীবিকার তাগিদে যেতেই হচ্ছে।

তাছাড়া আমাদের জীবনে নতুন অতিথি এসেছে। জীবন এখন আর আগের মত খামখেয়ালি করে চালানো যাবে না। এলিসাও এখনো সুস্থ হয়ে ওঠে নি। ওর জন্যেও ভালো মন্দ খাবার [আরো পড়ুন]

Read more

৩০২২-এর দিনগুলি

“পার্থপ্রতিম রায়চৌধুরী” –  এই নামটাই রাখছেন শেষমেষ?”

“আজ্ঞে হ্যাঁ, আর ওই পেশাটা করুন ডাক্তারবাবু।”

“কেন মশাই? সাধ করে বাঁশ দিতে চাইছেন ছেলেটাকে? তার চে ভালো বুদ্ধি দিই, পলিটিশিয়ান করে দিন মশাই, হাপুস হুপুস করে রোজগারোবে!”

“বলছেন?”

“বলছি নয়, দেখছি! যাক গে, সে আপনার ব্যাপার মশাই। আজ বিকেলের ভেতর জানান, সিকোয়েন্সিংটা কমপ্লিট হয়ে গেলে আমরা নিউ মডিফিকেশনে [আরো পড়ুন]

Read more

ফাঁদ

চারিদিক অন্ধকার। কিন্তু তার মধ্যেই তিনি দেখতে পেলেন এক নারীর অবয়ব। শুয়ে আছে চুপ করে।

দেখে মনে হয় সে মারা গেছে অনেকক্ষণ আগেই।

কিন্তু তাঁকে দেখে ছটফট করে উঠল সেই নারী। সঙ্গে সঙ্গে বদলে গেল চারপাশের দৃশ্যপট। মাত্র কয়েক সেকেন্ডের ব্যবধানে তিনি নিজেকে আবিষ্কার করলেন তাঁর প্রিয় রিভলভিং চেয়ারের উপরে। 

বিচ্ছিরি স্বপ্নটা মাঝেমাঝেই তাড়া করে তাঁকে। বিশেষ করে [আরো পড়ুন]

Read more

রক্তে রাঙানো

(১)

প্রায় বছর পনেরো আগের কথা, জলের দরে মফঃস্বলে এই বিরাট বাড়িটা কিনে নিয়েছিলেন আমার বাবা, জন্মে অবধি ভাড়া বাড়িতে জীবনের আঠারোটা শীত বসন্ত পার করে দেওয়ার পর অবশেষে মা বাবার সাথে এই প্রাসাদোপম বাড়িতে এসে উপস্থিত হয়েছিলাম।

মাসখানেক আগে এ বাড়ির মালিক গত হয়েছেন, পরবর্তী প্রজন্ম প্রবাসী, বৃদ্ধের দেহ পঞ্চভূতে বিলীন হওয়ার পর ঘাড়ের উপর থেকে জন্মভিটের বোঝা সুযোগ্য [আরো পড়ুন]

Read more

ঘাতক

“হে সর্বশক্তিমান থরের বংশধর, হে মহাধিপতি হেরন, তবে কি আমরা বসে বসে মার খাব? যুগযুগ ধরে বরফ গলার সময় ওরা আসছে। কিন্তু কোনওদিন আমরা অত্যাচারিত হইনি। উল্টে আমাদের চিরচারিত রীতি মেনে আমরা ওঁদের সমস্তরকম সহযোগিতা করে চলেছি। কতদিন, আর কতদিন এই আক্রমণ মেনে নেব?”

“শান্ত হও ওলাফ, ধৈর্য ধরতে শেখ। ভুলে যেও না আমরা ধরিত্রীর শ্রেষ্ঠ বীর ওডিন পুত্র থরের বংশধর। এই ধরিত্রীকে [আরো পড়ুন]

Read more

স্টীমপাঙ্ক কথা

স্টীম ইঞ্জিন? ইয়েস! স্টীম রোলার? ইয়েস! স্টীম সন্দেশ? সেও ইয়েস, ইয়েস, একবারে চাকুম চুকুম ইয়েস!

কিন্তু স্টীমপাঙ্ক? নো স্যার, কভি নেই শুনা। সেটা কি বস্তু জাঁহাপনা? খায় না মাথায় মাখে?

জানেন না? আচ্ছা গুছিয়ে বলি তাহলে। স্টীমপাঙ্ক হল সায়েন্স ফিকশন বা কল্পবিজ্ঞানের একটা বিশেষ ঘরাণা। ইংরিজীতে যাকে বলে সাব-জনার।

তা এই বিশেষ ঘরাণার বিশেষত্ব কি?

এই ধারার বিশেষত্ব এই [আরো পড়ুন]

Read more

ডে-ভি

কিউব, হাভেন, এখন

“আগে আমাদের পরিচয়গুলো দিই?” নরম, একটু স্নেহময় গলাটা বলে উঠল, “আমি ডক্টর আলতাফ হোসেন, চিফ অ্যানালিস্ট। আমার ডান পাশে রয়েছেন…”

“দরকার নেই।”

“মানে?”

“কারও পরিচয় দেওয়ার দরকার নেই ডক্টর। এই চেম্বারে ঢোকার আগে, ইনফ্যাক্ট কিউব-এ ঢোকার পর থেকে আপনার, আমার, সবার সবকিছু রেকর্ডেড হয়েছে। নতুন করে এ-সব বলার কোনো দরকার নেই।”

কিছুক্ষণ চুপচাপ হয়ে রইল ঘরটা। [আরো পড়ুন]

Read more

ক্লোরোপ্লাস্টিক মেসেজ

এক

ক্লাসে অনেক যত্ন নিয়ে পড়ান প্রফেসর তোফাজ্জল হোসেন, পারতপক্ষে ভাল ছাত্রছাত্রীরা এই বিষয় পড়তে চায় না, নিতান্ত বাধ্য হয়ে মেধা তালিকার শেষের দিক থেকে এই ডিপার্টমেন্টে ভর্তি হয় তারা। আজকাল সবার ইঞ্জিনিয়ারিং, ডাক্তারি অথবা হাল আমলে উড়ে এসে জুড়ে বসা বিবিএ, এমবিএর পড়ার দিকে বেশি ঝোঁক। উদ্ভিদবিদ্যার মত প্রাচীন ও মৌলিক বিষয়গুলোতে তাদের আগ্রহ [আরো পড়ুন]

Read more

বৃক্ষোভ

চুপচাপ বসে আকাশ দেখছিল সে। নীল আকাশটাকে খুবই অদ্ভুত লাগে তার। এইজন্য সময় পেলেই আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকে ও। অবসর সময়ের কাজ আর কি!

তবে আজকের কথা ভিন্ন। অসুস্থতা, ক্ষুধা আর বিষন্নতাতে জর্জরিত হয়ে প্রায় আধমরা অবস্থাতে আকাশের দিকে তাকিয়ে থেকে বাস্তবকে ভুলতে চাইছে সে। সন্ধ্যা হতে চলেছে প্রায়। ক্রমাগত রক্তিম লাল রঙ ধারণ করতে থাকা আকাশের দিকে তাকিয়ে কেমন যেন [আরো পড়ুন]

Read more

কল্পবিশ্ব আর এল-ডোরাডো’র কথামালা

ত বছরের আলাপচারিতায় এক বিনিসুতোর বাঁধন তৈরি হয়েছিল কল্পবিশ্বের শুভানুধ্যায়ী শ্রদ্ধেয় শ্রী সন্দীপ রায়ের সঙ্গে কল্পবিশ্ব টিমের, যার পরিচয় কল্পবিশ্বের পাঠকেরা পেয়েছিলেন ২০১৭-র পুজো সংখ্যায়। সেই আলাপকেই আবার ঝালিয়ে নিতে গত ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ তারিখে আমরা আবার হাজির হয়েছিলাম বিশপ লেফ্রয় রোডের রায়বাড়িতে, যা আমাদের আকৈশোরের হিং টিং ছট স্বপ্নের [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১৪

চতুর্দশ অধ্যায়

দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং

রেরদিন ব্রেকফাস্টের টেবিলে র‍্যালফ জানতে চাইল, ‘কীজন্য? কেন আমরা ওর ঝাড়ুটা চুরি করব জানতে পারি কী?’ সসেজের প্লেটটা নেওয়ার জন্য টেবিলের ওপর ঝুঁকে বলল, ‘জ্যাক্সনের ব্রিফকেস অদলবদল থেকেও কঠিন কাজ এটাকে চুরি করা। মেয়েদের ডরমে ছেলেদের প্রবেশ নিষিদ্ধ। আমরা ওটার কাছেও যেতে পারব না! তাছাড়া আমরা তো পোশাকটা [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১২

দ্বাদশ পরিচ্ছেদ

ভিসাম-ইনেপ্সিও

জ্যাক্সনের ব্রিফকেসটা হাতানোর জন্য জেমসদের সামনে প্রথম যে বাধা টপকানো দরকার সেটা হলো একটা প্রায় একইরকম দেখতে ব্রিফকেস জোগাড় করা। জ্যান যেমনটা বলেছিল ঠিক তেমনই ওটা একটা সাধারণ চামড়ার ব্যাগ। ব্রিফকেসের তুলনায় অনেক বেশী পরিমাণে ডাক্তারি ব্যাগের মতো দেখতে।  সোমবার রাতে ডিনার করার সময় ফ্যাকাল্টিদের টেবিলে [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১১

একাদশ পরিচ্ছেদ

তিনটি রেলিক

স্কুল থেকে ফিরে আসার পরের সাময়িক উত্তেজনার শেষে গ্রিমাল্ড প্লেসে ক্রিসমাসের ছুটির দিনগুলো আর পাঁচটা দিনের মতোই কাটতে থাকলো। র‍্যালফের সঙ্গে সবার পরিচয় করে দেওয়ার পর আর একজন পারিবারিক সদস্যর মতো সে মেতে গিয়েছে বাকিদের মতোই আনন্দের জোয়ারে। ক্রিসমাসের আগের বুধবারে হুগো আর রোজকে নিয়ে আঙ্কল রন ও হারমায়োনি আন্টি [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ১০

দশম পরিচ্ছেদ

ছুটির দিনে গ্রিমাল্ড প্লেসে

রের সোমবার ম্যাকগনাগল ম্যামের অ্যাডভান্সড ট্রান্সফিগারেশনের ক্লাস শেষ হওয়ার পর জেমস, জ্যান আর র‍্যালফ দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে থাকলো যতক্ষণ না শেষ শিক্ষার্থীটি বের হয়ে আসে। হেডমিস্ট্রেস গুছিয়ে নিচ্ছিলেন নিজের সাজ সরঞ্জাম।

‘কাম ইন, কাম ইন,’ উনি বললেন ওদেরকে উদ্দেশ্য করেই অথচ তাকাননি একবারও। ‘ওরকম শকুনের মত উঁকিঝুঁকি [আরো পড়ুন]

Read more

এইচ পি লাভক্র্যাফট – জীবন ও সাহিত্য

“এই বিশ্বের বিপুল বিষয় বৈচিত্রকে মানুষের মনের ক্ষুদ্র বিস্তার কিছুতেই অনুধাবন করতে পারে না, আর তাই আমার বিশ্বাস, জগতের সবচেয়ে অনুকম্পার বিষয় হলো মানবমনের চিন্তার এই সীমাবদ্ধতা ।” ‘কল অফ খথুলু’ রচনায় এটিই লাভক্র্যাফটের প্রথম বানী বলা চলে। এর থেকে তিনি আমাদের একটা স্পষ্ট ইঙ্গিত দেন, যে তিনি এমন কিছুর একটা সন্ধান দিতে চলেছেন, যার রহস্য [আরো পড়ুন]

Read more

হারানো হ্যালোইন (একটি ফ্যান ফিকশন)

ন্ধ্যে প্রায় হয়ে এল। হাইওয়ের ধার দিয়ে হেঁটে যেতে যেতে পাশ দিয়ে প্রবল গতিতে ছুটে বেরিয়ে যাওয়া গাড়ি গুলোর আলোয় মাঝে মাঝেই চোখ ধাঁধিয়ে যাচ্ছে অর্কর। অক্টোবরের শেষ। বেশ কনকনে ঠাণ্ডা পড়েছে ম্যাসাচুসেটস-এ – তার ওপর মাউন্ট গ্রেলকের কাছাকাছি বলে এই জায়গাটায় ঠান্ডা আরো বেশি।

     আজ প্রায় সাত মাস হল আমেরিকার বস্টন শহরে কাজের সূত্রে এসে রয়েছে অর্ক। এই ক’মাস [আরো পড়ুন]

Read more

শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের সাথে কল্পবিশ্বের আড্ডা

“মঙ্গলে জল আছে কিনা জেনে কী হবে, আগে এই গ্রহটাকে বাঁচাও”

তিনি হেঁটে আসছেন। দু-হাতে বাজারভরতি ব্যাগ। মাথায় টুপি। পরনে টি শার্ট-পাজামা। আমাদের দেখেই মুখে খেলে গেল হাসি, ‘ও তোমরা এসে গেছ?’ এমন করে বললেন যেন কতদিনের চেনা। আসলে যে সকলকেই প্রথমবার দেখছেন বোঝা মুশকিল। আমরা ক্যাবলার মতো হাসছিলাম আর অবাক চোখে তাকিয়ে ছিলাম তাঁর দিকে। আমাদের সামনে [আরো পড়ুন]

Read more

৪২ এর খপ্পরে – একটি কল্পবিশ্ব ইভেন্ট

৪২ এর খপ্পরে – একটি কল্পবিশ্ব ইভেন্ট

“৪২ আপাতদৃষ্টিতে একটি সামান্য ছোট্ট নম্বর, পাঁচে না থাকলেও সাতে আছে যদিও! তা সেই সংখ্যাকেই দুম করে রাজার আসনে বসিয়ে, ডগ্লাস অ্যাডামস সাহেব তার বিখ্যাত বই ‘দ্যা হিচহাইকারস গাইড টু দ্যা গ্যালাক্সি’তে বলে বসলেন,- প্রাণ, বিশ্বজগৎ আর সমস্ত কিছুকে নিয়ে যে পরম প্রশ্ন তার উত্তর হল ৪২! তারপর বহু বছর ধরে বহু পণ্ডিত খোঁজার [আরো পড়ুন]

Read more

অকাল তমসা পর্ব – ২

প্রথম পর্ব এই লিঙ্কে ]

পর্ব – ২ 

তক্ষণ যা যা লিখেছি তা থেকে নিশ্চয়ই আমার স্বপ্ন তথা দুঃস্বপ্নগুলো কতখানি ভয়ানক ছিল তা বোঝা গেছে। ইতিমধ্যে আমি বেশ টের পাচ্ছিলাম যে বদ্ধ পাগল হবার প্রাথমিক ধাপে আমি প্রবেশ করে ফেলেছি। মাঝে মাঝে ভাবতাম আমার আগে যারা এই ঘটনার শিকার হয়েছে তারাও কি এরকম পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছিল? কে জানে! একদিকে এই সচেতন আর [আরো পড়ুন]

Read more

আমি নিশার আতঙ্ক

রে ঢুকতেই প্রথমে নজর পড়ল টেবিলের উপর সুন্দর একটা খাম। চট্‌ করে তুলে নিলাম। সত্যি, অদ্ভুত মনোগ্রাম করা খাম। গভীর নীল সমুদ্র। লাল প্রবালের স্তূপ এবড়ো খেবড়ো। কিন্তু কি বিশ্ৰী। লাল প্রবাল স্তূপের পাশে রয়েছে একটা বড় ইঁল বা বাণ মাছ। চোখ দুটো চুনি। মুখটা চ্যাপ্টা জোঁকের মত সাকার লাগান। কি জীবন্ত ছবি মনে হয় এক্ষুণি যেন নড়ে উঠবে ইলটা। [আরো পড়ুন]

Read more

মহাকাশযাত্রী বাঙালী

টনার অদ্ভূত যোগাযোগ জীবনে কখনো কখনো আশ্চর্যভাবে দেখা যায়। সকালবেলা কটা বৈজ্ঞানিক পত্রিকা ডাকে এসেছে। তন্ময় হয়ে তারই কয়েকটা নিবন্ধ ও আলোচনা পড়ছিলাম। মার্কিন একটি পত্রিকায় ‘কোয়াসার’ সম্বন্ধে অত্যন্ত চমৎকার একটি আলোচনা বেরিয়েছে। সেটি শেষ করে আরো দুটি পত্রিকার কোন নিবন্ধটি আগে পড়ব তাই নিয়ে তখন দ্বিধায় পড়েছি। একটি নিবন্ধ অ্যান্টিম্যাটার [আরো পড়ুন]

Read more

দ্বিতীয় জগত

পরূপ সুন্দর একটা সরোবর। আর সেই সরোবর ঘিরে পাথর আর বালি, তারপরে তৃণভূমি। আসলে এটা একটা ছোটো উপত্যকা। পাহাড়ের মালায় ঘেরা। পাহাড়গুলো সব বালিপাথরের পাহাড়, হলুদ বালিপাথর। তাই পাহাড়গুলোকে সোনার পাহাড় বলে মনে হয়।

     একটা পাহাড় থেকে নেমেছে ছোটো একটা ঝর্ণা, সেটা নদী হয়ে বয়ে এসে হ্রদে মিশেছে। পাহাড়ের নাম সুবর্ণগিরি, নদীর নাম ভদ্রা আর হ্রদের নাম নীলতারা।   

  [আরো পড়ুন]

Read more

অদৃশ্য

লোকটা বারবার কেন আসে? সে কী চায়?

     ব্যাপারটা অনিন্দ্যকে খুব ভাবিয়ে তুলেছে। একজন শিশিবোতলওয়ালার সাথে রুমেলারই বা এত ঘনঘন কী এমন দরকার থাকতে পারে? রুমেলা যদি তাকে বাড়ির পুরনো শিশি, বোতল, খবরের কাগজ ইত্যাদি বিক্রি করত, তাহলেও বোঝা যেত, কিন্তু তাও তো নয়! যখনই অনিন্দ্য বাড়ি থাকে না, তখনই লোকটা রুমেলার কাছে আসে আর অনিন্দ্যকে দেখলেই তড়িঘড়ি করে চলে যায়। ব্যাপারটা খুবই অদ্ভুত।

[আরো পড়ুন]

Read more

পূর্ণিমা

কটা লালচে ধুলোর ঝড় পেছনে নিয়ে জিপটা চলে গেল বিশাল একটা অশ্বত্থের নিচে তাদের দুজনকে আর তাদের দুটো সুটকেস, এক ক্রেট জলের বোতল আর শুকনো খাবারের প্যাকেটে ঠাসা একটা কার্টন নামিয়ে দিয়ে।

     জিপের শব্দটা মিলিয়ে যেতেই এক মুহূর্তের জন্য রাহুলের ভেতরটা ছমছম করে উঠল। একটা অজানা শঙ্কা পলকের জন্য তাকে ছুঁয়ে গেল যেন। এই গহন ঝিম জঙ্গলে আগামী সাত দিনের জন্য তারা [আরো পড়ুন]

Read more

বাঙ্ময়

অ্যাপার্টমেন্টের লিফটের বাঁদিকের দেওয়ালটায় সার দিয়ে লেটারবক্স। রঙ চটে, তুবড়ে তাদের বেশিরভাগেরই দৈন্যদশা। ফ্ল্যাটের নম্বরটুকু শুধু কোনমতে পড়া যায়।

অন্যদিন অরিন্দম এদিকে ফিরেও তাকায় না, সোজা লিফটে উঠে যায়। কিন্তু আজ একটা সরু গলায় ‘অরিন্দম, চিঠি, চিঠি’ ডাকে থমকে দাঁড়িয়ে পড়তে হল তাকে।

     আটান্ন তলার বোস সাহেব নিজের লেটারবক্স থেকে চিঠি বের করছিলেন, মাথা ঘুরিয়ে বললেন,

[আরো পড়ুন]

Read more

আঁধারের নিঃশ্বাস

“আগের জীবনটা আমার কাছে এখন ছায়া ছায়া একটা স্বপ্নের মতো। কাউকে বোঝানোর কোন দায় নেই আমার। শুধু এই অসীম নক্ষত্র পথের বিস্তৃতির মাঝখানে দাঁড়িয়ে নিজের খেয়ালেই বলে যাচ্ছি এই কথাগুলো। আজ মনে হয় এ যেন বিগত জীবনের ঘটনা।”

     “আমার বিশ্ববরেণ্য শিক্ষক সুনীতিবাবুর নির্দেশে গ্রামগঞ্জের নানা প্রবাদ প্রবচন বিশেষ করে যার মধ্যে ভয় বা আশঙ্কার বীজ লুকিয়ে আছে সেসব নিয়ে [আরো পড়ুন]

Read more

ভুল

ক্টর ধৃতিমানের কোয়ার্টারের সামনে দাঁড়িয়ে রয়ের একটু নার্ভাসই লাগছিল।

ইউনিভার্সিটি ছাড়ার পর থেকে ধৃতিমানের, বা ওঁর কাজের সঙ্গে রয়ের সরাসরি কোনো যোগাযোগ ছিল না।

     একদা প্রিয় ছাত্র যে গবেষণা বা শিক্ষকতা বা নিদেনপক্ষে মহাকাশবিজ্ঞান নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন মেগা-কর্পোরেশনের চাকরি না করে সাংবাদিকতা করছে, এটা ধৃতিমান কোনোমতেই মেনে নিতে পারেন নি। তাই চাকরি [আরো পড়ুন]

Read more

অদৃশ্য মানুষ

ক্টর গ্রাহাম স্মিথ প্রাইভেট লিফটের ভিতর থেকে দিগন্তের দিকে একবার চোখ বুলিয়ে নিলেন। ওয়াশিংটন ডিসির এই আশি তলা বাড়ির উপরের দিকের কুড়ি তলাই জিটা কর্পোরেশনের অফিস আর ল্যাবরেটরি। এই লিফটে আশি তলায় উঠতে লাগে ঠিক নয় মিনিট পঁয়তাল্লিশ সেকেন্ড। ওঠার আর নামার এই সময় টুকুই ডঃ স্মিথের জীবনের একমাত্র সময় যখন তিনি কাজ আর কোম্পানি ছাড়া অন্য কিছু নিয়ে [আরো পড়ুন]

Read more

ট্রাইট্রাস

previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Read more

জেট্টা

previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Read more

গ্রন্থ পরিচিতি – এ সব আগামীকাল ঘটেছিল

বইঃ এ সব আগামীকাল ঘটেছিল

সম্পাদকঃ বাল ফোণ্ডকে  

প্রচ্ছদঃ সুবীর রায় 

অনুবাদকঃ নবারুণ ভট্টাচার্য 

প্রকাশকঃ ন্যাশানাল বুক ট্রাস্ট, ইন্ডিয়া 

প্রথম সংস্করনঃ ১৯৯৬  

পরিচায়কঃ অরুন্ধতী সিনহা রয়  

সায়েন্স ফিক্‌শনের গল্প বলতে এখনও অধিকাংশ বাঙালি পাঠককুল বোঝে H.G.Wells, Edgar Allen Poe অথবা Jules Verne। বাংলা ভাষায় প্রথম সায়েন্স ফিক্‌শন গল্প লেখার সূত্রধর আচার্য জগদীশ [আরো পড়ুন]

Read more

চলচ্চিত্র সমালোচনা – কিন্‌ জা জা (১৯৮৬)

মেরিকা আর সোভিয়েত ইউনিয়ন এই দুই সুপার পাওয়ারের মধ্যে ঠান্ডা যুদ্ধের উত্তাপ তখন প্রায় ঠান্ডা হয়ে আসছিল। রেগন সাহেব তার স্ট্র্যাটেজিক ডিফেন্সিভ বা ‘স্টার ওয়র্স’ প্রজেক্ট নিয়ে মানুষের মনে ভয়ের আবহ তৈরী করে দিতে পেরেছিলেন বেশ সাফল্যের সঙ্গে। সেই সময় ১৯৮৬ সাল নাগাদ তদানীন্তন সোভিয়েত আমলে মস ফিল্ম স্টুডিও থেকে ‘কিন্‌ জা জা’ নামে একটা ছায়াছবি [আরো পড়ুন]

Read more

অগ্নিপথ ২ – আলোকবর্তিকা

স্থানঅজ্ঞাত 

কাল: ৮০,০০০ বি.সি.ই.

পাত্র: নিও

 

|| ২ক ||

মুদ্রের আওয়াজটা বড় মধুর লাগে নিও’র। সে তীরে বসেই অনেকটা সময় কাটিয়ে দেয়। এই সমুদ্রের একটা জায়গায় একটা বড়ো প্রাকৃতিক খাল তৈরী হয়ে মিশে গেছে গভীর অরণ্যের মধ্যে। জোয়ারের সাথে সাথে জল ঢুকে পড়ে খালের মধ্যে। খাল উপচে তীর ছাপিয়ে যায়। অনেক মাছ খেলা করতে করতে উঠে আসে ডাঙায়। মাছরাঙা আসে, আসে আরোও [আরো পড়ুন]

Read more

ক্যুইজ

কল্পবিশ্বের তৃতীয় সংখ্যার কুইজের উত্তর কেউ সম্পূর্ণ ঠিক দিতে পারেননি।

 

১) লাভক্রাফটিয়ান ইউনিভার্সের বিখ্যাত কাল্পনিক বই নেক্রোনমিকনের লেখক কে?

২) লাভক্রাফটের বহু গল্পের পটভূমি আর্কহ্যাম শহর কোথায় অবস্থিত?

৩) ১৯৮২ সালে নির্মিত বিখ্যাত হরর ছায়াছবি ‘দ্য থিং’ এর লেখক কে?

৪) নিচের ছবিটি কোন ছায়াছবির দৃশ্য?

৫) অনেকের মতে ১৯৭৭ সালে নির্মিত এই ছবিটি বাংলা ভাষায় প্রথম বিজ্ঞানভিত্তিক [আরো পড়ুন]

Read more

জেমস পটার অ্যান্ড দ্য হল অফ এল্ডারস ক্রসিং – পার্ট ৯

নবম পরিচ্ছেদ

বিতর্কসভায় বিশ্বাসঘাতকতা

প্রতিদিনের রুটিনের সঙ্গে জেমস যতই নিজেকে মানিয়ে নিচ্ছিল, দিনগুলোও যেন ততটাই টকটক করে চলে যাচ্ছিল। ওদিকে জ্যান উত্তরোত্তর উন্নতি করছিল কুইডিচ খেলায়। আর সেই ওই সাফল্য লক্ষ্য করে জেমস এক অদ্ভুত রকমের ভালোলাগা না লাগার দ্বন্দ্বে ভুগছিল। একটা অসূয়াবোধ ওকে ক্ষত বিক্ষত করতো যখন শুনতে পেত জ্যানের দক্ষতা [আরো পড়ুন]

Read more

সম্পাদকীয়

হেমন্তকাল বরাবরই অবহেলিত। কিন্তু গরমের প্যাচপ্যাচানি আর বৃষ্টির একঘেয়েমির পরে চমৎকার আবহাওয়ার এই ঋতু কেমন করে যেন শীতের আগে একটা প্রিকোয়েলের মতো আসে আর চলে যায়। ভেবে দেখলে, বাঙালির উৎসব পর্বের শেষে হেমন্তই যেন তার মিঠে উপস্থিতিতে আসর জমিয়ে রাখে। এবারও সে এসেছে। আর তার সঙ্গে এসে পড়েছে কল্পবিশ্বও। তার একেবারে নতুন, ধোঁয়া ওঠা এক সংখ্যা নিয়ে।

     আমাদের [আরো পড়ুন]

Read more
error: Content is protected !!