শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের সাক্ষাৎকার

আজ টিম কল্পবিশ্ব পৌঁছে গিয়েছিল বাংলা সাহিত্যের মহীরুহ শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি। মুখোমুখি কথা হল কল্পবিজ্ঞান নিয়ে। নিজের লেখা নিয়ে বলতে বলতে প্রসঙ্গ থেকে প্রসঙ্গান্তরে তিনি ছুঁয়ে গেলেন ভূত, ভবিষ্যৎ, অলৌকিকতা পেরিয়ে ঈশ্বর, অনন্তের সীমাহীনতাকে। এই কথোপকথনের পুরোটাই থাকবে কল্পবিশ্বের চতুর্থ সংখ্যায়। “তিনি হেঁটে আসছেন। দু-হাতে বাজারভরতি ব্যাগ। মাথায় টুপি। পরনে টি শার্ট-পাজামা। আমাদের দেখেই মুখে খেলে গেল হাসি, ‘ও তোমরা এসে গেছ?’ এমন করে বললেন যেন কতদিনের চেনা। আসলে যে সকলকেই প্রথমবার দেখছেন বোঝা মুশকিল। আমরা ক্যাবলার মতো হাসছিলাম। আর অবাক চোখে তাকিয়ে ছিলাম তাঁর দিকে। আমাদের সামনে দাঁড়িয়ে শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়! সেই ছোটোবেলার ‘গোঁসাইবাগানের ভূত’, ‘মনোজদের অদ্ভুত বাড়ি’, ‘বনি’, ‘পটাশগড়ের জঙ্গলে’ পেরিয়ে বড়বেলার ‘ঘুণপোকা’, ‘পারাপার’, ‘মানবজমিন’, ‘পার্থিব’… একের পর এক বইয়ের পাতা যেন ফড়ফড় করে উড়ে যাওয়ার শব্দ পাচ্ছিলাম। এত বছরের লালিত মুগ্ধতার রেশ কাটিয়ে মুখে বাক্য সরছে না যেন।”
– এবারে কল্পবিশ্বের সাথে কল্পবিজ্ঞান ও ফ্যান্টাসি নিয়ে একান্ত আলাপচারিতায় শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়।
শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের সাথে সাক্ষাৎকার

error: Content is protected !!